ঢাকাবাসীর শখ

সৌখিন ঢাকাবাসীর জীবনযাত্রা বরাবরই বৈচিত্র্যময়। নানারকম বাহারি শখ রাখতো বলে ঢাকাবাসীকে নিয়ে নানারকম রসালো গল্পও প্রচলিত আছে। যদিও শহরে বসবাসরত নিম্নবিত্তের কাছে বিনোদন ছিল আকাশকুসুম কল্পনা। তবে শহরে অনুষ্ঠিত ছোট-বড় সকল উৎসবে তাদের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যণীয়। যদিও বেশিভাগ সময়ই তারা কেবলই ছিল দর্শক।

উচ্চবিত্তের বিনোদনের জন্য এই শহরে ছিল নানা আয়োজন। শহরে অনুষ্ঠিত উৎসবে নানাবিধ বিনোদন ছাড়াও স্থানীয় ধনাঢ্যরা লালন করত নানা সৌখিনতা। বেশিরভাগ সময় ভিন্ন ভিন্ন দেশের বিদেশী শাসক দ্বারা শোষিত হওয়ার ফলে ঢাকার জীবনযাত্রার রূপরেখার পরিবর্তন হয়েছে বারবার। নানা সময় ঢাকার সামজিক জীবনে সঙ্গে যুক্ত হয়েছে নানা দেশী, নানা ভাষা-ভাষী লোকজনের আলাদা আলাদা কৃষ্টি-সংস্কৃতি। এতে করে পরিবর্তনের ছোয়া লেগেছে এ শহরবাসীর লক্ষ্য, ইচ্ছা, স্বপ্ন, শখ ইত্যাদিতে।

বিভিন্ন ধর্ম-গোত্র-ভাষা-জাতির সমন্বয়ে ঢাকায় যে মিশ্র সংস্কৃতি ঢাকায় গড়ে উঠেছে তাতে চিত্র বিচিত্র ঘটনার অন্ত নেই। বহু চিত্র বিচিত্র ঘটনার স্বাক্ষী মোগল রাজধানী ঢাকা। এরকমই কিছু টুকরো ঘটনা, শখ ও বিভিন্ন সামাজিক প্রথা নিয়ে এ অংশে আলোচনা করা হয়েছে। অন্যান্য অংশে ঢাকার বিচিত্র সব ঘটনার বর্ণনা দেয়ার কারণে এ অংশে সে ঘটনাগুলো বাদ দিয়ে প্রাপ্ত অন্যান্য কিছু তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে।

অন্যান্য অনেক শখের পাশাপাশি ঢাকার ধনাঢ্যদের মাঝে কবুতর পোষা, পশু শিকার, মুশায়ারা/কবি সম্মিলন, মাছ ধরা, ফটোগ্রাফি ইত্যাদি শখ দেখা যায়। বিলাসিতার মাঝে পাওয়া যায়- ঢাকার জলসাঘর/ঢাকার নাচঘর, ঢাকার বাগানবাড়ি, ঢাকার বৈঠকখানা, বেগুনবাড়ি বনভোজন ইত্যাদি।

এছাড়াও ঢাকায় আয়োজিত কয়েকটি টুকরো ঘটনা- তুরস্কর সাহাযার্থে ঢাকার রাজপথে মিছিল, প্রথম বিশ্বযুদ্ধে ব্রিটিশের বিজয়ে ঢাকায় উৎসব, ঢাকার রাজা পঞ্চম জর্জের সিলভার জুবিলী পালন, ঢাকায় পি সি সরকারের জাদু, গোর শহীদে ঘোড়া ভাঙ্গা, এপ্রিল ফুল পালন প্রভৃতি।

মূর্শেদূল মেরাজ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

four × one =

এই শহর নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে যে তথ্য-উপাত্ত্য সংগ্রহ করেছি গত এক দশকের বেশি সময় ধরে তা নিয়ে কিছু একটা করবার ইচ্ছে ছিল বহুদিন ধরেই। নানা…

error: Content is protected !!