ঢাকার শিলালিপি

৩৭৫-৪১৫ : দ্বিতীয় চন্দ্রগুপ্তের রাজত্বকালে ডবাক রাজ্যে (ঢাকার) অস্তিত্ব দেখা যায়।

১৪৬০ : এই সময়কার আরবি শিলালিপিতে ঢাকার নাম পাওয়া যায়।

১৫৫০ : এই বছরে মি জোয়াও-দ-বারোস/ডি বেরস কর্তৃক অংকিত ম্যাপে ঢাকার সুস্পষ্ট উলে খ আছে।

১৪৫৭ : ঢাকায় সুলতানী আমলের টিকে থাকা ঢাকার একমাত্র মসজিদ নারিন্দা বিনত বিবির মসজিদ নির্মাণ।

১৪৫৯ : নসওয়ালাগলি মসজিদের তোরণ সংস্কার। 

১৫৯৪-১৬০৬ : মানসিংহের যুদ্ধ বর্ণনায় পাওয়া যায় ঢাকা অঞ্চলের নাম।

১৫৮৩-৮৫ : আকবর নামায়ও বেশ কয়েকবার ঢাকার নাম উলে খ করা হয়েছে।

১৬০২ : রাজা মানসিংহ ভাওয়াল গড় থেকে তার সদর দফতর বা রাজধানী ঢাকায় স্থানান্তরিত করেন।

১৬০৮ : ইসলাম খান চিশ্তী বাংলার সুবেদার নিযুক্ত।

১৬১০ : মুঘল সুবেদার ইসলাম খান চিশ্তী কর্তৃক ঢাকায় বাংলার রাজধানী স্থানান্তর এবং ‘জাহাঙ্গীর নগর’ নামকরণ।

১৬১৩ : বাংলার সুবেদার ইসালাম খান চিশ্তীর মৃত্যু।

১৬১৬ : ইউরোপীয়দের মধ্যে প্রথম পর্তুগিজদের আগমন।

১৬১৭ : ইব্রাহিম খান ফতেহ্ জঙ্গ বাংলার সুবেদার নিযুক্ত।

১৬২৪ : বিদ্রোহী শাহাজাদা খুরুমের (পরবর্তীতে সম্রাট শাহজাহান) ঢাকা অধিকার। 

১৬২৬ : প্রায় ৭০টি জাহাজ নিয়ে মগরা আক্রমণ করে ঢাকাকে। তাদের সঙ্গে ছিল আনুমানিক ৩০জন পর্তুগিজ এবং খ্রীস্টান।

১৬৩৯ : সম্রাট শাহজাহানের দ্বিতীয় পুত্র শাহসুজা ঢাকায় বাংলার সুবেদার নিযুক্ত।
: সাময়িকভাবে ঢাকার রাজধানীর মর্যাদা স্থগিত।

১৬৪০ : পর্তুগীজ ধর্মযাজক সেবাস্তিয়ান মানরিকের ঢাকায় আগমন।

১৬৪১ : ধানমন্ডি মোগল ঈদগাহ নির্মাণ।

১৬৪২ : মীর মুরাদ কর্তৃক মুসলমান শিয়া সম্প্রদায়ের ইমামবাড়া হোসেনী দালান নির্মাণ।

১৬৪৪ : সুবেদার শাহসুজার আদেশে বড় কাটরার প্রাসাদ নির্মাণ।

১৬৪৯ : চুরিহাট্টা মসজিদ নির্মাণ।

১৬৫৮ : প্রথম ইংরেজ জেম্স হার্টের ঢাকায় আগমণ।

১৬৬০ : এই বছরের মে মাসে বাংলার সুবেদার মীর জুমলা ঢাকায় আসেন এবং ঢাকাকে পুনরায় রাজধানী হিসেবে ঘোষণা দেন।
: আরাকানবাসীর হাতে যুবরাজ শাহসুজা নির্মমভাবে নিহত হন।

১৬৬৩ : সুবেদার মীরজুমলার মৃত্যু। 

১৬৬৪ : শায়েস্তা খান কর্তৃক সুবেদারের কার্যভার গ্রহণ।

১৬৬৬ : ফরাসি পর্যটক টাভের্নিয়ার এই বৎসর ঢাকায় সফর করেন। 

১৬৬৮ : ঢাকায় ইংরেজ কুঠি স্থাপন।

১৬৭১ : বড় কাটরার অনুকরণে ছোট কাটরা প্রাসাদ নির্মাণ। 

১৬৭৫ : চক মসজিদ নির্মাণ।

১৬৭৬ : মোহাম্মদপুর সাত গম্বুজ মসজিদ নির্মাণ।

১৬৭৭ : তেজগাঁতে পর্তুগিজ গির্জা নির্মাণ।

১৬৭৮ : শায়েস্তা খানের পরিবর্তে শাহজাদা মোহাম্মদ আজম সুবেদার নিযুক্ত।

১৬৭৮ : শাহজাদা শোহাম্মদ আজম কর্তৃক লালবাগ দুর্গের নির্মাণ কাজ শুরু।

১৬৭৯ : হাজী খাজা শাহবাজ মসজিদ (হাইকোর্ট প্রাংঙ্গ সংলগ্ন এলাকায়) নির্মাণ।
: ইস্কাটনে খাজা অম্বরের মসজিদ নির্মাণ।
: সুবেদার আজম ঢাকা ত্যাগ করেন। 
: শায়েস্তা খান কর্তৃক দ্বিতীয়বার বাংলার সুবেদারের দায়িত্ব গ্রহণ।

মূর্শেদূল মেরাজ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

three × two =

এই শহর নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে যে তথ্য-উপাত্ত্য সংগ্রহ করেছি গত এক দশকের বেশি সময় ধরে তা নিয়ে কিছু একটা করবার ইচ্ছে ছিল বহুদিন ধরেই। নানা…

error: Content is protected !!