ঢাকার পার্ক

রাজধানী শহর হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাওয়ার পর থেকে দীর্ঘ পথ পরিক্রমায় ঢাকাস্থ সাধারণ মানুষের সুযোগ-সুবিধা বা বিনোদনের কথা চিন্তা করে কোন কর্মকাণ্ড করা হয়েছিল কিনা তা নির্দিষ্ট করে বলা কঠিন। সাতচল্লিশের পূর্ব পর্যন্ত ঢাকার ইতিহাস দেখলে দেখা যায় শহরে যে কয়টা বিনোদন কেন্দ্র ছিল তার প্রায় সবটাই ছিল উচ্চবিত্তের বিনোদনের জন্যে। আজকের মত এত বসতি না থাকায় একসময় ঢাকার অনেকাংশই ছিল ফাঁকা। সেকারণেই হয়তো আলাদা করে সাধারণের জন্য মাঠ গড়ে তোলা হয়নি। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর নিজস্ব খেলাধুলার জায়গা ছিল প্রায় প্রত্যেকটিরই।

এক সময়কার সেই ফাঁকা ঢাকায় কোথায় কোথায় মাঠ-পার্ক-বাগান ছিল তার চিহ্নায়ন করাও বর্তমানের ঘনবসতিপূর্ণ এই শহরে প্রায় অসম্ভব। ঢাকার আদি যে মাঠ-পার্ক ছিল তার বেশিভাগই কালের গর্ভে হারিয়ে গেছে। তারপরও এখনো এই শহরে টিকে আছে বেশকিছু মাঠ-পার্ক।

মোগল শাসনামলের ঢাকায় বেশ কয়েকটি পার্ক-বাগান-মাঠের নাম পাওয়া গেলেও সে সম্পর্কে বিশেষ কিছুই জানা যায় না। পরবর্তীতে ঢাকা মিউনিসিপ্যালিটি প্রতিষ্ঠার পরে শহরে কয়েকটি পার্ক প্রতিষ্ঠা করা হয়। এগুলোর মধ্যে ছিল- করোনেশান পার্ক, লেডিস পার্ক, ভিক্টোরিয়া পার্ক, রাজার দেউরী পার্ক ইত্যাদি। ঢাকার কয়েকটি বাগানের নামও পাওয়া যায়- বলধা গার্ডেন, রোজ গার্ডেন, শাহবাগ, কোম্পানী বাগিচা ইত্যাদি।

ঢাকার এই বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে সাধারণ অধিবাসীদের সুযোগ খুব বেশি ছিল না। এগুলোতে প্রধানত শহরের ধনাঢ্য, উচ্চবিত্ত, প্রভাবশালী ও ঢাকাস্থ ইউরোপীয়দের বিচরণ ছিল। তবে বিশ শতকে ঢাকার মাঠগুলোতে বিভিন্ন আয়োজিত হতে দেখা যায় বিভিন্ন খেলা।

মূর্শেদূল মেরাজ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

4 − three =

এই শহর নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে যে তথ্য-উপাত্ত্য সংগ্রহ করেছি গত এক দশকের বেশি সময় ধরে তা নিয়ে কিছু একটা করবার ইচ্ছে ছিল বহুদিন ধরেই। নানা…

error: Content is protected !!